শুক্রবার, ফেব্রুয়ারি ৩, ২০২৩
Homeরাজশাহী প্রতিদিনরাজশাহীরোববার থেকে রাজশাহী ও রংপুরে পরিবহন ধর্মঘট

রোববার থেকে রাজশাহী ও রংপুরে পরিবহন ধর্মঘট

নিজস্ব প্রতিবেদক:

আগামি রোববার (২৭ মার্চ) রাজশাহী ও রংপুর বিভাগে ১৬ জেলায় পরিবহন ধর্মঘটের ডাক দেওয়া হয়েছে। ধর্মঘট চলাকালে বাস, ট্রাক, ট্যাংকলরী, কাভার্ড ভ্যান, মাইক্রোবাস, সিএনজি বন্ধ থাকবে। বৃহস্পতিবার (২৪ মার্চ) বিকেলে রাজশাহী বাস টার্মিনালে সংবাদ সম্মেলন থেকে এই ঘোষণা দেওয়া হয়।

সংবাদ সম্মেলনে লিখিত বক্তব্য পাঠ করেন- বাংলাদেশ সড়ক পরিবহন শ্রমিক ফেডারেশন রাজশাহী বিভাগীয় আঞ্চলিক কমিটির সাধারণ সম্পাদক ও জেলা মোটর শ্রমিক ইউনিয়নের সাধারণ সম্পাদক মাহাতাব হোসেন চৌধুরী।

লিখিত বক্তব্যে তিনি বলেন, ২০২১ সালের ২৬ মার্চ রাজশাহী থেকে হানিফ কেটিসি ঢাকা কোচ যাত্রী নিয়ে ঢাকার উদ্দেশ্যে যাওয়ার পথে কাটাখালীতে বিপরীত দিক থেকে আসা দ্রুতগতির সিএনজি চালিত মাইক্রোবাসের চালক নিয়ন্ত্রণ হারিয়ে বাসের সামনে ধাক্কা মারে। এই ঘটনায় কাটাখালী থানায় হওয়া মামলায় বাসের চালক আব্দুর রহিমকে গ্রেফতার করে পুলিশ। আব্দুর রহিম দীর্ঘ এক বছর ধরে জেল হাজতে রয়েছেন। আব্দুর রহিম দীর্ঘদিন জেলে থাকায় কষ্টের মধ্যে দিন কাটাচ্ছে তার পরিবারের ছোট ছোট ছেলে-মেয়েরা।

আব্দুর রহিমের জামিনের জন্য রাজশাহীর স্থানীয় প্রশাসনসহ রাজশাহী ও রংপুর কোচ স্ট্যান্ড মানববন্ধন কর্মসূচি পালন করা হয়েছে। গত ১৬ মার্চ জেলা প্রশাসককে স্মারকলিপিও প্রদান করা হয়েছে। তিনি আরো বলেন, আমরা শান্তিপূর্ণ কর্মসূচি পালন করেছি; তাতে লাভ হয়নি। সর্বশেষ বৃহস্পতিবার (২৪ মার্চ) বাস চালক আব্দুর রহিমের জামিন আবেদন করলে আদালত নামঞ্জুর করেন। আব্দুর রহিমের জামিন না হওয়া পর্যন্ত উত্তরবঙ্গের ১৬ জেলায় এই পরিবহন ধর্মঘট চলবে।

জেলা মোটর শ্রমিক ইউনিয়নের সাধারণ সম্পাদক মাহাতাব হোসেন চৌধুরী আরো বলেন, কোন যানবাহন সিএনজি দিয়ে চালানোর বিধান নেয়। কিন্তু মাইক্রোবাস সিএনজি দিয়ে চালানো হচ্ছে। দুর্ঘটনার পরে বাস চালকের লাইসেন্সসহ সব কাগজপত্র দেখা হয়েছে। সেখানে কোন ধরনের সমস্যা পাওয়া যায়নি। কিন্তু মাইক্রোবাস চালকের কোন কাগজপত্র দেখা হয়নি। আসলে সেই চালকের লাইসেন্স আছে; কি নাই; কে জানে।

তিনি বলেন, সড়কে ট্রাক ও বাসের মধ্যে বড় বড় দুর্ঘটনা ঘটে। তাতে হতাহতের ঘটনা ঘটে। কখনও আগ্নিকাণ্ডের ঘটনা ঘটেনি; বা কেউ পুড়ে মারাও যায়নি। কাটাখালীর ওই মাইক্রোবাসটি সিএনজিতে চলিত ছিল। ফলে দুর্ঘটনার পরে অগ্নিকাণ্ডে মারা গেছে সবাই। বিষয়টি আরো ভালোভাবে দেখা দরকার। বাস চালক আব্দুর রহিমের জামিন না হওয়া পর্যন্ত রাজশাহী ও রংপুর বিভাগে পরিবহন ধর্মঘট চলবে।

এসময় উপস্থিত ছিলেন, রাজশাহী জেলা ট্রাক ও ট্যাংকলরী কাভার্ড ভ্যান সমিতির সাধারণ সম্পাদক হারুন অর রশিদ, জেলা মোটর শ্রমিক ইউনিয়ন মাইক্রোবাস শাখার সাধারণ সম্পাদক বাপ্পি, জেলা মিশুক ও সিএনজি মালিক সমিতির সাধারণ সম্পাদক দিদার হোসেন ভুলুসহ নেতৃবৃন্দ।

সর্বশেষ সংবাদ