শুক্রবার, ফেব্রুয়ারি ৩, ২০২৩
Homeরাজশাহী প্রতিদিনরাজশাহীতাপদাহে পুড়ছে পদ্মা পাড়ের রাজশাহী

তাপদাহে পুড়ছে পদ্মা পাড়ের রাজশাহী

নিজস্ব প্রতিবেদক:

রাজশাহীতে রেকর্ড তাপমাত্রার পর জনজীবন অসহনীয় হয়ে পড়েছে। শনিবার (১৬ এপ্রিল) দিনের সর্বোচ্চ তাপমাত্রা কিছুটা কমলেও গরমের দাপট কমেনি।

আট বছর পর গতকাল শুক্রবার রাজশাহীতে সর্বোচ্চ তাপমাত্রা রেকর্ড করা হয়েছিল ৪১ দশমিক ২ ডিগ্রি সেলসিয়াস, যা ছিল সারাদেশের মধ্যেও সর্বোচ্চ তাপমাত্রা।

এদিকে, শনিবার বেলা ২টায় এবং ৩টায় রাজশাহীতে সর্বোচ্চ তাপমাত্রা রেকর্ড করা হয়েছে ৩৮ দশমকি ৩ ডিগ্রি সেলসিয়াস। ফলে শুক্রবারের চেয়ে শনিবার তাপমাত্রা ২ দশমিক ৯ ডিগ্রি সেলসিয়াস কম। 

তবে রোদের তেজ ও গরম কোনোটাই কমেনি। রমজানের মধ্যভাগে আগুনমুখো আবহাওয়ায় প্রায় অচল হয়ে পড়েছে রাজশাহীর জনজীবন। সকাল থেকে দুপুর গড়াতে সড়কে যানবাহন চলাচল কমে এসেছে। কমে গেছে পথাচারীদের স্বাভাবিক চলাচলও। সড়কে নেমে সবাই গাছের সুশীতল ছায়া খুঁজছেন। যেখানেই ছায়া পাচ্ছেন; কিছুটা সময় সেখানেই দাঁড়িয়ে স্বস্তির শ্বাস নিচ্ছেন। টানা তাপদাহ ও দুঃসহ গরমে হাঁসফাঁস করছে মানুষের প্রাণ।

রাজশাহী শহরের মরা পদ্মা থেকে বাতাসে ভেসে আসা ধূলিকণাগুলোও যেন এখন শরীরে গরম ছ্যাঁকা দিচ্ছে। প্রচণ্ড তাপদাহের কারণে খালি মাথায় কোনোভাবেই বাইরে বের হওয়া যাচ্ছে না। লু হাওয়ায় হাঁপিয়ে উঠেছে পশু-পাখিরাও। তাপমাত্রার পারদ উপরেই থাকছে। প্রখর রোদে মাটি ফেটে চৌঁচির হয়ে যাচ্ছে। 

রাজশাহী আবহাওয়া পর্যবেক্ষণাগার বলছে, ভারী বৃষ্টিপাত না হওয়া পর্যন্ত এই তাপমাত্রা প্রশমিত হওয়ার কোনো সম্ভাবনা আপাতত নেই। তাই ভারী বর্ষণের জন্যই অপেক্ষা করতে হবে।

রাজশাহী আবহাওয়া পর্যবেক্ষণাগারের জ্যেষ্ঠ পর্যবেক্ষক মো. গাওসুজ্জামান জানান, শনিবার বেলা ২টায় এবং ৩টায় রাজশাহীতে সর্বোচ্চ তাপমাত্রা রেকর্ড করা হয়েছে ৩৮ দশমিক ৩ ডিগ্রি সেলসিয়াস এবং সর্বনিম্ন ২৭ দশমিক ০ ডিগ্রি সেলসিয়াস। এদিন সকাল ৬টায় বাতাসের আর্দ্রতা ছিল ৯২ শতাংশ এবং বেলা ৩টায় ৫২ শতাংশ। শুক্রবারের চেয়ে তাপমাত্রা কিছুটা কমেছে। তবে রাজশাহীর ওপর দিয়ে এখনও মাঝারি তাপপ্রবাহ বয়ে যাচ্ছে। তাই গরমের তীব্রতা কমছে না।

তিনি বলেন, তাপমাত্রা সাধারণত ৩৬ থকে ৩৮ ডিগ্রি সেলসিয়াসের মধ্যে থাকলে তাকে মৃদু তাপপ্রবাহ বলা হয়। আর ৩৮ থেকে ৪০ ডিগ্রি পর্যন্ত তাপমাত্রা থাকলে তাকে মাঝারি তাপপ্রবাহ বলা হয়। এছাড়া তাপমাত্রা ৪০ থেকে ৪২ ডিগ্রি সেলসিয়াসের ওপরে উঠলেই তাকে তীব্র তাপপ্রবাহ বলা হয়ে থাকে। আর তাপমাত্রা ৪২ ডিগ্রি পার করলে তাকে বলা হয় অতি তীব্র তাপপ্রবাহ।

আট বছর পর শুক্রবার রাজশাহীতে তাপমাত্রার পারদ ৪১ ডিগ্রি ছাড়ায়। এর আগে ২০১৪ সালের ২৫ এপ্রিল রাজশাহীতে সর্বোচ্চ তাপমাত্রা রেকর্ড হয় ৪১ দশমিক ২ ডিগ্রি সেলসিয়াস।

এর আগে ১৯৭২ সালের ১৮ মে দেশে স্মরণকালের সর্বোচ্চ তাপমাত্রা রেকর্ড করা হয়েছিল রাজশাহীতে ৪৫ দশমিক ১ ডিগ্রি সেলসিয়াস। এটিই এখন পর্যন্ত বাংলাদেশে রেকর্ডকৃত সর্বোচ্চ তাপমাত্রা। এরপর তাপমাত্রা বাড়লেও এখন পর্যন্ত পুরোনো সেই রেকর্ড ভাঙেনি।

সর্বশেষ সংবাদ