ঢাকাসোমবার , ২০ জুন ২০২২

সাড়ে ৫ হাজার প্রাথমিক বিদ্যালয়ের ভবন জরাজীর্ণ

জুন ২০, ২০২২ ২:২৮ অপরাহ্ণ । ১২৩ জন

প্রাথমিক ও গণশিক্ষা প্রতিমন্ত্রী জাকির হোসেন জানিয়েছেন, বর্তমানে দেশে সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের মধ্যে ৫ হাজার ৬২৬টির ভবন জরাজীর্ণ। রোববার জাতীয় সংসদে আওয়ামী লীগের সংসদ সদস্য মামুনুর রশীদের প্রশ্নের জবাবে তিনি এ তথ্য জানান।

এর আগে স্পিকার ড. শিরীন শারমিন চৌধুরীর সভাপতিত্বে সংসদের বৈঠকের শুরুতে প্রশ্নোত্তর টেবিলে উত্থাপিত হয়।

প্রতিমন্ত্রী বলেন, এসব জরাজীর্ণ সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের ভবনের অবকাঠামোগত উন্নয়নের লক্ষ্যে সরকার পদক্ষেপ নিয়েছে। যেসব বিদ্যালয়ে জরাজীর্ণ ভবন রয়েছে তার মধ্যে মেরামতযোগ্য স্থানীয় চাহিদার ভিত্তিতে বড় রকমের সংস্কারের আওতায় বরাদ্দ প্রদানের মাধ্যমে সেসব ভবন ব্যবহার উপযোগী করা হচ্ছে। এ ছাড়া যেসব বিদ্যালয়ের জরাজীর্ণ ভবন মেরামতযোগ্য নয় ‘অকেজো ঘোষণা কমিটির’ মাধ্যমে সেসব ভবন অকেজো ঘোষণা করা হলে স্থানীয় চাহিদার ভিত্তিতে এবং বাজেটে অর্থ সংস্থান সাপেক্ষে পর্যায়ক্রমে অতিরিক্ত শ্রেণিকক্ষ বা নতুন ভবন নির্মাণ করা হবে।

সরকারি দলের সংসদ সদস্য মোরশেদ আলমের প্রশ্নের জবাবে প্রতিমন্ত্রী জাকির হোসেন বলেন, করোনা মহামারির কারণে প্রাথমিক পর্যায়ে সমাপনী পরীক্ষা আপাতত বন্ধ থাকায় পঞ্চম শ্রেণির শিক্ষার্থীদের বৃত্তি প্রদান কার্যক্রম বন্ধ আছে। তবে সুবিধাভোগী শিক্ষার্থীদের মাঝে উপবৃত্তি কার্যক্রম চলমান।

ক্ষমতাসীন দলের আরেক সংসদ সদস্য নিজাম উদ্দিন হাজারীর প্রশ্নের জবাবে প্রাথমিক ও গণশিক্ষা প্রতিমন্ত্রী বলেন, এখন চলমান স্কুল ফিডিং কর্মসূচি আগামী ৩০ জুন শেষ হবে। এ বিষয়ে নতুন প্রকল্প নেওয়ার লক্ষ্যে ফিজিবিলিটি স্টাডির উদ্যোগ নেওয়া হয়েছে। ফিজিবিলিটি স্টাডি সম্পন্ন হওয়ার পর সুপারিশের আলোকে সমগ্র বাংলাদেশে সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের ছাত্রছাত্রীদের স্কুল ফিডিংয়ের জন্য নতুন প্রকল্প গ্রহণ করা হবে।
এ ছাড়া সরকারি দলের সংসদ সদস্য মনজুর হোসেনের প্রশ্নের জবাবে শিক্ষামন্ত্রী ডা. দীপু মনি বলেন, দেশে মোট এমপিওভুক্ত মাদ্রাসার সংখ্যা ৭ হাজার ৯৫৫টি। মাদ্রাসাগুলোতে প্রায় ৩৯ লাখ ১৫ হাজার ১৩৩ জন শিক্ষার্থী রয়েছে।

সরকারি দলের মামুনুর রশীদের প্রশ্নের জবাবে শিক্ষামন্ত্রী বলেন, শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান এমপিওভুক্তকরণ একটি চলমান প্রক্রিয়া। যেসব প্রতিষ্ঠান এমপিওভুক্ত নয় সেগুলোকে এমপিওভুক্ত করার বিষয়টি বিবেচনা করা হবে।

সরকারি দলের সংসদ সদস্য এম আব্দুল লতিফের প্রশ্নের জবাবে শিক্ষামন্ত্রী দীপু মনি জানান, ঢাকার স্কুলে চাপ কমাতে সরকার রাজধানীর আশপাশের এলাকাগুলোতে ১০টি সরকারি মাধ্যমিক বিদ্যালয় প্রতিষ্ঠার পদক্ষেপ গ্রহণ করা হয়েছে। এ বিদ্যালয়গুলো হবে কেরানীগঞ্জ, পূর্বাচল, জালকুড়ি, নবীনগর, ধামরাই, হেমায়েতপুর, জোয়ার সাহারা, সাঁতারকুল, আশুলিয়া ও চিটাগাং রোডে।

জাতীয় পার্টির সংসদ সদস্য শামীম হায়দার পাটোয়ারীর প্রশ্নের জবাবে শিক্ষামন্ত্রী দীপু মনি জানান, ‘শিক্ষা আইন, ২০২১’-এর বিষয়ে প্রাথমিক ও গণশিক্ষা মন্ত্রণালয়, মাধ্যমিক ও উচ্চ শিক্ষা অধিদপ্তর, মাদ্রাসা শিক্ষা অধিদপ্তর, বেসরকারি শিক্ষক নিবন্ধন ও প্রত্যয়ন কর্তৃপক্ষ (এনটিআরসিএ), কারিগরি শিক্ষা অধিদপ্তর এবং বাংলাদেশ বিশ্ববিদ্যালয় মঞ্জুরি কমিশন হতে মতামত পাওয়া গেছে। আগামী ২৩ জুন মতামত পর্যালোচনা করে শিক্ষা আইনের খসড়াটি চূড়ান্ত করে নীতিগত অনুমোদনের জন্য মন্ত্রিপরিষদ বিভাগে পাঠানো হবে।

শিক্ষাকে সহজলভ্য করতে বেসরকারি বিশ্ববিদ্যালয়ে সেমিস্টার ফি কমানোর পরিকল্পনা আছে কিনা, জাতীয় পার্টির সংসদ সদস্য মুজিবুল হকের এমন প্রশ্নের জবাবে শিক্ষামন্ত্রী বলেন, বিশ্ববিদ্যালয় মঞ্জুরি কমিশন কর্তৃক ইতোমধ্যে সব বেসরকারি বিশ্ববিদ্যালয়ের ফি কাঠামো সংগ্রহ করে পর্যালোচনার কাজ চলছে।

সরকারি দলের সংসদ সদস্য এম আব্দুল লতিফের প্রশ্নের জবাবে সমাজকল্যাণমন্ত্রী নুরুজ্জামান আহমেদ জানান, ২০২১-২০২২ অর্থবছরে ‘ভিক্ষাবৃত্তিতে নিয়োজিত জনগোষ্ঠীর পুনর্বাসন ও বিকল্প কর্মসংস্থান’ শীর্ষক কর্মসূচিতে ৬ কোটি টাকা বরাদ্দ ছিল। পরে সংশোধিত বাজেটে বরাদ্দ ২০ কোটি ৮০ লাখসহ সর্বমোট ২৬ কোটি ৮০ লাখ টাকা পাওয়া যায়। প্রাপ্ত অর্থ দেশের ৬৩টি জেলায় ভিক্ষুক পুনর্বাসনসসহ চারটি জেলায় পাঁচটি সরকারি আশ্রয়কেন্দ্রে ভিক্ষুকদের সাময়িক আশ্রয়ের নিমিত্ত ১৬টি টিনশেড বিল্ডিং তৈরি ও প্রয়োজনীয় অন্যান্য মালপত্র ক্রয়ের জন্য সংশ্লিষ্ট জেলাগুলোতে প্রেরণ করা হয়েছে। ভিক্ষুুক পুনর্বাসনের কাজ চলমান রয়েছে।- দৈনিক শিক্ষা

Paris