ঢাকাবৃহস্পতিবার , ২১ জুলাই ২০২২
  • অন্যান্য

রাজশাহীতে ছোট চলচ্চিত্রের বড় সম্ভাবনা

জুলাই ২১, ২০২২ ৮:২৩ অপরাহ্ণ । ১২০ জন

গ্রীনসিটি ডেস্ক:

জনপ্রিয় নির্মাতা ও অভিনেতা সালাহউদ্দিন লাভলু রাজশাহীতে পাঁচ মিনিটের চলচ্চিত্র নির্মাণের ওপর দুই দিনের কর্মশালা শেষ করেছেন গত বুধবার।

এতে নিবন্ধন করেছিলেন চার শতাধিক ছেলেমেয়ে। বয়সের ভিত্তিতে বাছাই করে ৩০০ জনকে সুযোগ দেওয়া হয়েছে। দুই দিনের কাজ শেষে গতকাল বুধবার সন্ধ্যায় সমাপনী অনুষ্ঠানে অংশগ্রহণকারী ও অতিথিদের কথায় উঠে এল, রাজশাহী ছোট চলচ্চিত্রের বড় সম্ভাবনার জায়গা।


এই কর্মশালার আয়োজন করেছিল জেলা শিল্পকলা একাডেমি চলচ্চিত্র সংসদ। মঙ্গল ও বুধবার সকাল ৯টা থেকে বিকেল ৫টা পর্যন্ত জেলা শিল্পকলা একাডেমি মিলনায়তনে কর্মশালাটি চলে। এতে ১৪ বছর থেকে ৩৫ বছরের চলচ্চিত্র নির্মাণে আগ্রহী যেকোনো ব্যক্তির অংশগ্রহণের সুযোগ ছিল।


জেলা সংস্কৃতিবিষয়ক কর্মকর্তা আসাদুজ্জামান সরকার জানান, কর্মশালায় স্বল্পদৈর্ঘ্য চলচ্চিত্র নির্মাণের প্রাথমিক ধারণা, চলচ্চিত্রের বিষয়বস্তু নির্ধারণ, ক্যামেরার ব্যবহার, সম্পাদনা, শব্দ সংযোজন প্রভৃতি বিষয়ে প্রশিক্ষণ প্রদান করা হয়। কর্মশালায় ৩০০ অংশগ্রহণকারীকে ৩১টি গ্রুপে ভাগ করা হয়। তাঁদের কাছ থেকে ১৯টি পাণ্ডুলিপি বাছাই করা হয়। নির্বাচিত পাণ্ডুলিপি দিয়ে নির্মিত চলচ্চিত্র আগামী ৩১ সেপ্টেম্বর জমা দিতে হবে। এসব চলচ্চিত্র দিয়ে একটি উৎসবের আয়োজন করা হবে। সেরা তিনটি চলচ্চিত্রকে পুরস্কৃত করা হবে।

বুধবার বিকেলে সমাপনী অনুষ্ঠানে অংশগ্রহণকারীদের সনদ বিতরণসহ জেলা শিল্পকলা একাডেমির নৃত্যকলা বিভাগের পরিবেশনায় সাইফুল ইসলামের পরিচালনায় ‘কুশান পালা’র অংশবিশেষ পরিবেশিত হয়। সমাপনী অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি ছিলেন জেলা প্রশাসক আবদুল জলিল এবং বিশেষ অতিথি নাট্যজন মলয় ভৌমিক।
দুজন ছেলে ও দুজন মেয়ে অংশগ্রহণকারী তাঁদের প্রতিক্রিয়ায় বোঝাতে চেয়েছেন, তাঁরা পারবেন, তাঁদের পারতে হবে। সামাজিক দায়বদ্ধতার জায়গা থেকে তাঁরা চলচ্চিত্র নির্মাণ করবেন। এই মনোবল তাঁরা কর্মশালা থেকে পেয়েছেন।
সালাউদ্দিন লাভলু বলেন, এত দুর্দান্ত আইডিয়া রাজশাহীর তরুণদের কাছ থেকে পাবেন, তিনি ভাবতেই পারেননি। মনে হয়েছে, তাঁরা যেন অনেক দিন ধরেই চলচ্চিত্রের সঙ্গে আছেন, কাজ করেন। এই কর্মশালায় চলচ্চিত্র নির্মাণের প্রস্তুতির পাশাপাশি তাঁদের ভেতর সামাজিক মূল্যবোধের জায়গা তৈরি হলো। যত্ন নিতে পারলে এদের ভেতর থেকে অনেক বড় নির্মাতা বেরিয়ে আসতে পারে। অনেক বড় কাজ হতে পারে।

মলয় ভৌমিক বেশ কিছু উদাহরণ টেনে বলেন, কাজটা চ্যালেঞ্জিং, তবে করতে পারলে ৫ মিনিটে ৫০০ বছরের কথা বলে দেওয়া যায়। কারণ, এক সেকেন্ডে ২৫টি ছবির ফ্রেম পার হয়ে যায়। কর্মশালাটিকে তাঁর উৎসাহব্যঞ্জক মনে হয়েছে।


প্রধান অতিথি রাজশাহীর জেলা প্রশাসক আবদুল জলিল বলেন, এটি একটি চমৎকার আয়োজন। এ নিয়ে রাজশাহীর ছেলেমেয়েদের মধ্যে তিনি ব্যাপক উৎসাহ ও সৃজনশীলতা লক্ষ করেছেন। পাঁচ মিনিটের চলচ্চিত্রের মাধ্যমে তাঁরা সামাজিক ব্যাধিকে তুলে ধরতে পারবেন। এসব চলচ্চিত্র নিয়ে পরে একটা প্রতিযোগিতার আয়োজন করা হবে।

প্রথম আলো