ঢাকাবুধবার , ২৭ জুলাই ২০২২
  • অন্যান্য

রাজশাহীতে পদ্মা এক্সপ্রেস ট্রেন আটকে রাবি ভর্তিচ্ছুদের বিক্ষোভ

জুলাই ২৭, ২০২২ ৭:২৬ অপরাহ্ণ । ২২১ জন

গ্রীনসিটি ডেস্ক:

রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়ে পরীক্ষা শেষে ট্রেনে উঠার সময় বাধা দেয়ায়, টিকেট কালোবাজারি ও রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়ের (রাবি) ভর্তি পরীক্ষা শেষে ফেরার ব্যবস্থা না থাকায় অভিযোগে ঢাকাগামী পদ্মা এক্সপ্রেস ট্রেন আটকে রেখেছে ভর্তিচ্ছুরা। আজ বুধবার বিকেলে রাজশাহী রেলওয়ে স্টেশনে এ ঘটনা ঘটে।

পরীক্ষার্থীদের অভিযোগ, রাজশাহী থেকে ফেরার জন্য স্টেশনের কাউন্টার থেকে কোনো টিকেট পাওয়া যাচ্ছে না। টিকেট কালোবাজারি হয়েছে এবং নির্ধারিত মূল্যের চেয়ে ৫০০-১০০০ টাকা বেশি দামে তা সংগ্রহ করতে হচ্ছে বলে জানান তারা। পরীক্ষার্থীরা রেললাইনে শুয়ে প্ল্যটফর্মের পাশে অবস্থান নিয়ে ঢাকাগামী পদ্মা এক্সপ্রেস ট্রেন আটকে দেয়।

এদিকে জানা যায়, টিকেট কাটার পরও ট্রেনে যায়গা হয়নি রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়ে (রাবি) ভর্তি পরীক্ষা দিতে আসা অনেক শিক্ষার্থীর। আবার অনেকেই ট্রেনের টিকেট না সংগ্রহ করেই চেপে বসেন ট্রেনের সিটে। ফলে বুধবার (২৭ জুলাই) বিকাল ৪টায় ঢাকামগামী পদ্মা এক্সপ্রেস ট্রেন ছাড়ার আগে জায়গা না হওয়ায় ভর্তিচ্ছু অনেক শিক্ষার্থীদের ট্রেন থেকে নামিয়ে দেয়া হয়। এতে ফুঁসে ওঠে রাজশাহীতে আসা ভর্তিচ্ছুরা। এক পর্যায়ে স্টেশনের প্লাটফর্মে থাকা ঢাকাগামী পদ্মা এক্সপ্রেস ট্রেনটি আটকিয়ে দিয়ে বিক্ষোভ শুরু করেন। 

এ বিষয়ে পশ্চিমাঞ্চল রেলওয়ের জেনারেল ম্যানেজার (জিএম) অসীম কুমার তালুকদার জানান, রাবির ভর্তি পরীক্ষার জন্য সকল ট্রেনের সাপ্তাহিক ছুটি বাতিল করা হয়েছে। পাশাপাশি অতিরিক্ত বগিও যুক্ত করা হয়েছে।তিনি পরীক্ষার্থীদের সঙ্গে কথা বলেছেন। কেউ টিকেট কালোবাজারির বিষয়ে কোনো অভিযোগ করেননি।আগামীকালের মধ্যে পরীক্ষার্থীদের জন্য অতিরিক্ত কোচের ব্যবস্থা করা হবে বলে তিনি আশ্বাস দেন।

তবে বুধবার সন্ধ্যা ৬টা পর্যন্ত পরীক্ষার্থীরা ট্রেনটিকে আটকে রেখেছে বলে জানা গেছে। রাজশাহী স্টেশন থেকে ঢাকাগামী পদ্মা এক্সপ্রেস ট্রেনটির বিকেল ৪টায় ছাড়ার কথা ছিল।

উল্লেখ্য, গত ২৫ জুলাই রাবি ভর্তি পরীক্ষা শুরু হয়ে এবং আজ ছিল ভর্তি পরীক্ষার শেষ দিন। ৩ ইউনিটের পরীক্ষায় ৪ হাজার ২০টি আসনের বিপরীতে দেড় লক্ষাধিক ভর্তিচ্ছু আবেদন করেছেন।

Paris