বুধবার, ফেব্রুয়ারি ৮, ২০২৩
Homeরাজশাহী প্রতিদিনরাজশাহীরাজশাহীতে নিপাহ ভাইরাসে শিশুর মৃত্যু 

রাজশাহীতে নিপাহ ভাইরাসে শিশুর মৃত্যু 

নিজস্ব প্রতিবেদক

রাজশাহীতে নিপাহ ভাইরাস শনাক্তের একদিন পরেই মৃত্যু হয়েছে সোয়াদ আলী (৭) নামের এক শিশুর। সোমবার (২৩ জানুয়ারি) সকালে রাজশাহী মেডিকেল কলেজ (রামেক) হাসপাতালের আইসিইউতে চিকিৎসাধীন অবস্থায় তার মৃত্যু হয়।

নিহত মো. সোয়াদ পাবনার ঈশ্বরদী উপজেলার সানোয়ার আলীর ছেলে।

এর আগে রোববার (২২ জানুয়ারি) সন্ধ্যায় শিশুটির শরীরে নিপাহ ভাইরাস শনাক্ত হয়।

রামেক হাসপাতাল সূত্র জানায়, গত শুক্রবার (২০ জানুয়ারি) সকালে খেজুরের কাঁচা রস পান করেছিল শিশু সোয়াদ। তার কিছুক্ষণ পর থেকে জ্বর ও খিঁচুনি উঠলে সুয়াদ অচেতন হয়ে যায়। একইদিন বিকেলে তাকে রামেক হাসপাতালের শিশু ওয়ার্ডে ভর্তি করা হয়। সুয়াদের অবস্থায় সঙ্কটপূর্ণ হওয়ায় পরের দিন শনিবার (২১ জানুয়ারি) সকালে হাসপাতালের আইসিইউতে নেওয়া হয়। পরে সন্দেহ হওয়ায় নমুনা সংগ্রহ করা হয়। শিশুটির শরীরে নিপাহ ভাইরাস শনাক্তে পরীক্ষার জন্য পাঠান চিকিৎসকরা। রোববার ফলাফলে পজিটিভ আসে। আর সোমবার সকালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় শিশুটি মারা যায়।

ডা. আবু হেনা মোস্তফা কামাল ঢাকা পোস্টকে জানান, ‘খেজুরের কাঁচা রস পান করা প্রায় সবারই পছন্দের। শিশুর বাবা-মা খুব শখ করেই খেজুরের কাঁচা রস পান করে। বাদুড়ের সংস্পর্শে আসা খেজুরের রস অবশ্যই পান করবেন না। নিজ পরিচিত, বন্ধু-বান্ধব, আত্মীয়-স্বজনদের দেবেন না।

এর আগে চলতি মাসের প্রথম সপ্তাহে রামেক হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় নিপাহ ভাইরাসে গোদাগাড়ী উপজেলার মাটিকাটা ইউনিয়নের বাসিন্দা এক নারীর মৃত্যু হয়।

সর্বশেষ সংবাদ

No posts to display