ঢাকারবিবার , ৯ এপ্রিল ২০২৩
  • অন্যান্য

আল আকসা ইস্যুতে ইসরাইলকে যে বার্তা দিল ওআইসি

এপ্রিল ৯, ২০২৩ ৪:১৭ অপরাহ্ণ । ১২৩ জন

সাম্প্রতিক সময়ে মুসলমানদের তৃতীয় পবিত্রতম স্থান আল আকসা মসজিদে ঢুকে দখলদার ইসরাইলি বাহিনী নামাজরত ফিলিস্তিনি মুসল্লিদের ওপর যে দমনপীড়ন চালিয়েছে, সে ব্যাপারে ইহুদি রাষ্ট্রটিকে একটি বার্তা দিয়েছে মুসলিম দেশগুলোর সংগঠন ইসলামিক সহযোগিতা সংস্থা (ওআইসি)।

শনিবার ওআইসির এক বিশেষ বৈঠকে একটি যৌথ রেজ্যুলেশন পাশ করা হয়েছে। এতে বলা হয়েছে, পবিত্র আল আকসা মসজিদে নামাজ আদায়ের ক্ষেত্রে মুসলমানদের একচেটিয়া অধিকার রয়েছে।

পাকিস্তানি সংবাদমাধ্যম ডন রোববার এক প্রতিবেদনে জানিয়েছে, ওআইসির কার্যালয় জেদ্দায় কার্যনির্বাহী পরিষদের একটি বিশেষ সভায় রেজ্যুলেশনটি পাস করা হয়েছে। এতে সমগ্র মুসলিম উম্মাহর সঙ্গে সংশ্লিষ্ট ফিলিস্তিনি ইস্যু, আল-কুদস আশ-শরিফ এবং এর পবিত্রতাকে পুনঃনিশ্চিত করা হয়েছে।

রেজ্যুলেশনে আল আকসা মসজিদের সঙ্গে সারা বিশ্বের মুসলমানদের চিরন্তন সংযুক্তির উপর গুরুত্বারোপ করা হয়েছে। সেই সঙ্গে ফিলিস্তিনের রাজধানী অধিকৃত পূর্ব আল-কুদসের আরব ও ইসলামিক পরিচয়কেও নিশ্চিত করা হয়েছে।

এ ছাড়া প্রস্তাবে রমজান মাসে পবিত্র আল আকসা মসজিদে বারবার অতর্কিত হামলার মাধ্যমে ইসরায়েলি দখলদার বাহিনী এবং সন্ত্রাসী বসতি স্থাপনকারীদের বিপজ্জনক কর্মকাণ্ডের নিন্দা করা হয়। যেখানে অন্যদের পাশাপাশি নারী ও শিশুরাও অবস্থান করেছিল।

প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, ওইআইসির প্রস্তাবে আল আকসা মসজিদের পবিত্রতার উপর ইসরায়েলি দখলদার কর্তৃপক্ষ, তাদের কর্মকর্তা এবং সন্ত্রাসবাদী বসতি স্থাপনকারীদের ক্রমাগত নিয়ম লঙ্ঘনের পরিণতি সম্পর্কে সতর্ক করা হয়েছে।

ক্রমাগত বিপজ্জনক এবং উস্কানিমূলক কর্মের পরিণতির জন্য ইসরাইলকে দায়বদ্ধ করেছে ৫৫ মুসলিম দেশের সংগঠন ওইআইসি।

যুগান্তর