ঢাকারবিবার , ২১ মে ২০২৩

‘আল-আকসার নিয়ন্ত্রণ ইসরায়েলের কাছে’, মন্ত্রীর বিতর্কিত মন্তব্য

মে ২১, ২০২৩ ৭:২৭ অপরাহ্ণ । ৭৯ জন

ইসরায়েলের উগ্রপন্থি নিরাপত্তামন্ত্রী বেন-গিভির রোববার (২১ মে) পুলিশি পাহারায় পবিত্র আল-আকসা মসজিদ প্রাঙ্গনে গিয়েছিলেন। আর সেখানে গিয়ে তিনি মন্তব্য করেছেন, ‘আল আকসার নিয়ন্ত্রণ রয়েছে ইসরায়েলের কাছে।’

উগ্রপন্থি বেন-গিভিরের এমন মন্তব্যের তীব্র সমালোচনা করেছে ফিলিস্তিন।

মুসলিম সম্পদ্রায়ের কাছে আল-আকসা মসজিদটি অত্যন্ত পবিত্র স্থান। আবার এই মসজিদটিকে ইহুদিরা তাদেরও ধর্মীয় স্থান হিসেবে দাবি করে থাকে। এটিকে তারা টেম্পল মাউন্ট নামে ডাকে।

তবে আন্তর্জাতিক চুক্তি অনুযায়ী, আল-আকসায় ইবাদত করার সুযোগ পাবেন শুধুমাত্র মুসলিমরাই। অন্য ধর্মগোষ্ঠীর মানুষের এখানে প্রার্থনা বা ধর্মীয় রীতি-নীতি পালনের সুযোগ নেই। বর্তমানে মসজিদটির জিম্মাদারের দায়িত্বে রয়েছেন জর্ডানের রাজপরিবার।

রোববার সকালে আল-আকসা প্রাঙ্গণে গিয়ে বেন-গিভির বলেছেন, ‘টেম্পল মাউন্টে আসতে পেরে আমি খুশি। ইসরায়েলের মানুষের জন্য সবচেয়ে গুরুত্বপূর্ণ স্থান। হামাসের কাছ থেকে যেসব হুমকিই দেওয়া হোক না কেন, কাজ হবে না। আমরা জেরুজালেমসহ ইসরায়েলের সব স্থানের নিয়ন্ত্রক।’

পুলিশি নিরাপত্তা নিয়ে আল-আকসায় যান উগ্রপন্থি বেন-গিভির (মাঝে)

এদিকে আল-আকসায় হামলা নিয়ে ২০২১ সালে ইসরায়েলের বিরুদ্ধে যুদ্ধে লিপ্ত হয় ফিলিস্তিনের গাজাভিত্তিক সশস্ত্র গোষ্ঠী হামাস। যা ১০ দিন স্থায়ী ছিল। ওই যুদ্ধের পর হামাস বারবার হুঁশিয়ারি দিয়েছে যদি আবারও আল-আকসায় এমন ঘটনার পুনরাবৃত্তি হয় তাহলে তারা এর প্রতিক্রিয়া জানাবে।

আন্তর্জাতিক চুক্তিতে আছে, অন্য ধর্মের মানুষ চাইলে আল-আকসা প্রাঙ্গনে যেতে পারবেন। কিন্তু তারা কোনো ধরনের প্রার্থনা করতে পারবেন না। কিন্তু সাম্প্রতিক সময়ে ইসরায়েলি ইহুদিরা এ চুক্তি বারবার ভঙ্গ করেছে।

বেন-গিভির নতুন করে আল-আকসায় যাওয়ার পর এ নিয়ে কথা বলেছেন ফিলিস্তিনের প্রেসিডেন্ট মাহমুদ আব্বাসের একজন মুখপাত্র। তিনি বলেছেন, ‘চোরের মতো সকালে আল-আকসায় বেন-গিভিরের অনুপ্রবেশ বাস্তবতা পরিবর্তন করবে না এবং এর ওপর ইসরায়েলের নিয়ন্ত্রণও প্রতিষ্ঠিত হবে না।’

আল-আকসা প্রাঙ্গনে ইহুদিরা ঘন ঘন আসায় ফিলিস্তিনিরা আশঙ্কা করছেন, ইসরায়েলিরা মসজিদটির নিয়ন্ত্রণ নেওয়ার চেষ্টা করছে।

সূত্র: দ্য গার্ডিয়ান