ঢাকাশনিবার , ১৫ জুলাই ২০২৩
  • অন্যান্য

রামপালের কয়লা আনা জাহাজের বিরুদ্ধে আটকাদেশ প্রত্যাহার হাইকোর্টের

জুলাই ১৫, ২০২৩ ৬:১১ অপরাহ্ণ । ২৫৪ জন

ইন্দোনেশিয়া থেকে রামপাল তাপবিদ্যুৎকেন্দ্রের জন্য ৩১ হাজার টন কয়লা নিয়ে মোংলা সমুদ্রবন্দরে আসা লাইবেরিয়ার পতাকাবাহী জাহাজ এমভি পানাগিয়া কানালার বিরুদ্ধে আটকাদেশ প্রত্যাহার করেছেন হাইকোর্ট। ফলে এই জাহাজে থাকা কয়লা খালাসে কোনো বাধা নেই। চীনের একটি কোম্পানির করা মামলায় জাহাজটির বিরুদ্ধে আটকাদেশ দেওয়া হয়েছিল।

শনিবার (১৫ জুলাই) সম্পূরক কার্যতালিকা তৈরি করে বিচারপতি খিজির আহমেদ চৌধুরীর একক হাইকোর্ট বেঞ্চ আটকাদেশ প্রত্যাহারের আদেশ দেন।

হাইকোর্টের সংশ্লিষ্ট বেঞ্চ সূত্রে জানা যায়, বিদেশি ওই জাহাজটিতে রামপাল তাপবিদ্যুৎকেন্দ্রের জন্য কয়লা আনা হয়েছে- এ বিষয়টি নজরে আনায় জাতীয় স্বার্থে হাইকোর্ট আগের আদেশ প্রত্যাহার করে নিয়েছেন।

আদালতের এই আদেশ ‘কোর্ট মার্শালে’র মাধ্যমে মোংলা সমুদ্রবন্দর কর্তৃপক্ষের কাছে পাঠাতে বলা হয়েছে। এসময় আদালতে বাদীপক্ষের আইনজীবী মোহাম্মদ হোসেন উপস্থিত ছিলেন।

এদিকে ওই জাহাজটি নিয়ে যে বিরোধ রয়েছে তা বাদী-বিবাদী উভয়পক্ষ সমঝোতার মাধ্যমে নিষ্পত্তি করবে এবং সে বিষয়ে একটি আবেদন আদালতে দাখিল করবে বলে জানা গেছে।

গত বুধবার (১২ জুলাই) লাইবেরিয়ার পতাকাবাহী এই জাহাজটির বিরুদ্ধে চীনের একটি কোম্পানির করা মামলায় আটকাদেশ দেন হাইকোর্ট। একইসঙ্গে পরবর্তী নির্দেশ দেওয়ার আগ পর্যন্ত মোংলা সমুদ্রবন্দর কর্তৃপক্ষকে জাহাজটির এনওসি প্রদানের ক্ষেত্রেও নিষেধাজ্ঞা দেওয়া হয়। বিচারপতি খিজির আহমেদ চৌধুরী এ আদেশ দেন।

এমভি পানাগিয়া কানালার নামে দুই কোটি ৯৯ লাখ ৪৫ হাজার ১৮২ দশমিক ৬৬ টাকা ক্ষতিপূরণ দাবি করে চীনের সিসিএক্স শিপিং কোম্পানি লিমিটেডের পক্ষে তাদের প্রতিনিধি মো. আবুল হাসান হাইকোর্টে মামলা করেন। চীনা কোম্পানির দাবি, ওই জাহাজটি তাদের সাপ্লাই করা পেট্রোলের দাম পরিশোধ করেনি।

ঢাকা পোস্ট

Paris