ঢাকাবুধবার , ১৯ জুলাই ২০২৩
  • অন্যান্য

‘বিএনপির দফার কোনো শেষ নেই’

জুলাই ১৯, ২০২৩ ৮:২১ অপরাহ্ণ । ১০৯ জন

বিএনপির দফার কোনো শেষ নেই। তবে তাদের তথাকথিত কোনো দফাই সফল হবে না। দেশে আন্দোলনের নামে তারা ফের জ্বালাও-পোড়াও করলে জনগণকে সাথে নিয়ে তার দাঁত ভাঙা জবাব দেওয়া হবে।

বিএনপি-জামায়াতের ষড়যন্ত্র, নৈরাজ্য, অপরাজনীতি ও সন্ত্রাসের বিরুদ্ধে কেন্দ্রীয় কর্মসূচির অংশ হিসেবে রাজশাহীতে আওয়ামী লীগের কর্মসূচিতে বক্তারা এ হুঁশিয়ারি উচ্চারণ করেন।

মঙ্গলবার (১৮ জুলাই) বিকেলে রাজশাহী মহানগর আওয়ামী লীগের উদ্যোগে সাহেববাজার বড় মসজিদ চত্বরে এ শান্তি ও উন্নয়ন শোভাযাত্রা কর্মসূচি অনুষ্ঠিত হয়।

কর্মসূচিতে বক্তারা বলেন, বিএনপি বিভিন্ন সময় বিভিন্ন দফার কথা বলে। কিন্তু তাদের কোনো দফাই শেষ পর্যন্ত বাস্তবায়ন হয় না। এর মাধ্যমে তারা দেশবিরোধী ষড়যন্ত্র, নৈরাজ্য ও অগণতান্ত্রিক আন্দোলনে লিপ্ত হয়। তবে তারা কোনোদিনও সফল হবে না। তারা দেশ ও জাতির মঙ্গল চায় না। আজকে নাকি তারা পদযাত্রা করছে। এটা তো পদযাত্রা নয়, এই যেন শোক যাত্রা। এই তথাকথিত পদযাত্রা দিয়ে, কোনো দফা দিয়ে আর যাই হোক শেখ হাসিনার সরকারের পতন ঘটানো কোনোদিনই সম্ভব নয়। এর চেয়ে আরও বড় ঘটনা মেজর জিয়া ঘটিয়েছিল, এরশাদ ঘটিয়েছিল, খালেদা জিয়াও ঘটিয়েছিল। কিন্তু আওয়ামী লীগ শেষ হয়ে যায়নি, আওয়ামী লীগ এগিয়ে গেছে।

আওয়ামী লীগ নেতৃবৃন্দ বলেন, বিএনপি যদি মনে করে দেশবিরোধী চক্রান্ত ও অগণতান্ত্রিক আন্দোলন করে জনগণ ধানের শীষে ভোট দেবে, তবে তারা মূর্খের স্বর্গে বাস করছে। উন্নয়ন করে আওয়ামী লীগ, আর জনগণ কী এতই বোকা যে ভোট দেবে বিএনপিকে! দেশের জনগণ নৌকায় ভোট দিয়ে আওয়ামী লীগকে জয়যুক্ত করে আবারও শেখ হাসিনাকে ক্ষমতায় নিয়ে আসবে। আমরা লক্ষ্য করলাম ছাত্রদল ও ছাত্রশিবিরের সন্ত্রাসীরা আমাদের জাতীয় পতাকাকে অবমাননা করেছে, প্রকৃত দেশপ্রেমিক আমরা এহেন ন্যক্কারজনক ঘটনার তীব্র নিন্দা জানাচ্ছি।

বক্তারা আরও বলেন, লন্ডনে বসে থেকে তারেক রহমান খুব লাফাচ্ছে। তার ইন্ধনে বিএনপির নেতাকর্মীরা ষড়যন্ত্র ও সন্ত্রাসী কর্মকাণ্ড শুরু করেছে। কিন্তু এসবে কোনো লাভ নেই। রাজনীতি করার যখন এতই ইচ্ছা তখন দেশে আসুন। দেশে ফিরিয়ে আনার জন্য আদালত প্রক্রিয়া করছে, বাংলার মাটিতে কীভাবে বিচার করতে হয় বঙ্গবন্ধু কন্যা শেখ হাসিনা খুব ভালোমতোই জানেন।

রাজশাহী মহানগর আওয়ামী লীগের ভারপ্রাপ্ত সভাপতি বীর মুক্তিযোদ্ধা মোহাম্মদ আলী কামালের সভাপতিত্বে বক্তব্য দেন সহ-সভাপতি অধ্যক্ষ শফিকুর রহমান বাদশা, যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক আহ্সানুল হক পিন্টু।

সঞ্চালনা করেন মহানগর আওয়ামী লীগের রাজশাহী মহানগরের আইন বিষয়ক সম্পাদক মুসাব্বিরুল ইসলাম। অন্যান্যের মধ্যে আরও বক্তব্য দেন বোয়ালিয়া (পশ্চিম) থানা আওয়ামী লীগ সাধারণ সম্পাদক শামসুজ্জামান রতন, মতিহার থানা আওয়ামী লীগ সাধারণ সম্পাদক আলাউদ্দিন, নগর শ্রমিক লীগের ভারপ্রাপ্ত সভাপতি ওয়ালী খান, নগর যুবলীগ সাধারণ সম্পাদক মোশারফ হোসেন বাচ্চু, মহানগর স্বেচ্ছাসেবক লীগ সভাপতি আব্দুল মোমিন, মহানগর যুব মহিলা লীগ সভাপতি অ্যাডভোকেট ইসমত আরা, মহানগর ছাত্রলীগ সাধারণ সম্পাদক ডা. সিরাজুম মুবিন সবুজ, রাবি ছাত্রলীগের সাধারণ সম্পাদক ফয়সাল আহমেদ রুনু।

Paris