ঢাকাশনিবার , ২২ জুলাই ২০২৩
  • অন্যান্য

এবার ডেনমার্কে কুরআন অবমাননা

জুলাই ২২, ২০২৩ ৬:৪০ অপরাহ্ণ । ৯২ জন

ইউরোপের দেশ সুইডেনে মুসলমানদের পবিত্র ধর্মগ্রন্থ কুরআন অবমাননার ঘটনায় এখনো উত্তপ্ত বিশ্ব। এরই মধ্যে আবারো কুরআন পোড়ানোর ঘটনা ঘটেছে প্রতিবেশী দেশ ডেনমার্কে। দেশটির ইরাকি দূতাবাসের সামনে এই কুরআন পোড়ানোর ঘটনা ঘটেছে। পাশাপাশি ইরাকের পতাকাও পোড়ানো হয়েছে।

তুরস্কের সংবাদমাধ্যম টিআরটি ওয়ার্ল্ডের প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, শুক্রবার সুইডেনের ইসলামবিদ্বেষী গোষ্ঠী ড্যানস্কে প্যাট্রিয়টার কোপেনহেগেন ইরাকি দূতাবাসের সামনে এই কুরআন পোড়ানোর ঘটনা ঘটায়। গোষ্ঠীটি জানিয়েছে, তারা এই কাজটি করেছে মূলত ইরাকে সুইডিশ দূতাবাসে হামলার প্রতিবাদে।

গোষ্ঠীটি কোপেনহেগেনে কুরআন পোড়ানোর পাশাপাশি ইসলামবিরোধী বিভিন্ন স্লোগানও দেয়। ড্যানিশ পুলিশের উপস্থিতিতে গোষ্ঠীটি কুরআন পোড়ানোর মতো জঘন্য ঘটনা ঘটায়। পরে তারা কুরআন পোড়ানোর পুরো ঘটনাটি সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে শেয়ার করে।

গত বৃহস্পতিবার ভোরে সুইডেনে আবারো কুরআন পোড়ানোর ঘটনার প্রতিবাদে ইরাকি নাগরিকদের একটি দল বাগদাদের সুইডিশ দূতাবাসে হামলা চালায় এবং ভাঙচুর করে।

এদিকে, গত ২০ জুলাই আবারো মুসলমানদের পবিত্র ধর্মগ্রন্থ কুরআন পোড়ানোর অনুমতি দেওয়ায় ইরাকের প্রধানমন্ত্রী অবিলম্বে বাগদাদে নিযুক্ত সুইডিশ রাষ্ট্রদূতকে ইরাক ছাড়ার নির্দেশ দিয়েছেন। পাশাপাশি স্টকহোমে নিযুক্ত ইরাকি রাষ্ট্রদূতকেও দেশে ডেকে পাঠান তিনি।

ইরাকের প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয় থেকে পাঠানো এক বিবৃতিতে বলা হয়েছে, ইরাকের প্রধানমন্ত্রী শিয়া আল-সুদানি বাগদাদে নিযুক্ত সুইডিশ রাষ্ট্রদূতকে অবিলম্বে ইরাক ছাড়তে নির্দেশ দিয়েছেন।

বিবৃতিতে বলা হয়েছে, ‘পবিত্র কুরআন পোড়ানো, ইসলামের পবিত্র বিষয়কে অবমাননা এবং ইরাকি পতাকা পোড়ানোর জন্য সুইডিশ সরকারের বারবার অনুমতি দেওয়ার কারণে ইরাক সরকার এই সিদ্ধান্ত নিয়েছে।’

যুগান্তর