ঢাকামঙ্গলবার , ৬ ফেব্রুয়ারি ২০২৪
  • অন্যান্য

পুনমের মৃত্যুর খবর প্রকাশে কাজ করেছে যে প্রতিষ্ঠান

ফেব্রুয়ারি ৬, ২০২৪ ১০:০৭ অপরাহ্ণ । ৭৪ জন

২ ফেব্রুয়ারি সকালে সোশ্যাল মিডিয়ার এক পোস্ট থেকে জানা যায়, জরায়ু মুখের ক্যানসারে মারা গেছেন বলিউড অভিনেত্রী পুনম পান্ডে। এর ২৪ ঘণ্টা পর নিজেই প্রকাশ্যে আসেন পুনম। এক ভিডিও বার্তায় জানান, তিনি বেঁচে আছেন।

এর পাশাপাশি পুনম আরও জানান, ২৪ ঘণ্টার জন্য তার ‘নিখোঁজ’ হওয়ার কারণও। জরায়ু মুখের ক্যানসার নিয়ে নারীদের মধ্যে সচেতনতা সৃষ্টি করা ছিল তার মূল উদ্দেশ্য। তবে এ ঘটনায় পুনমের প্রতি অনেকেই নিন্দা জানিয়েছেন।

শুধু তা-ই নয়, মৃত্যুর ভুয়া খবর ছড়ানোর জন্য মুম্বাই পুলিশের কাছে দাবি জানান মহারাষ্ট্রের বিধায়ক সত্যজিৎ তাম্বে। তার মতে, মৃত্যুর ভুয়া খবর ছড়িয়ে পুনম যা করেছেন তা শাস্তিযোগ্য অপরাধ। অন্যদিকে নেটিজেনদের একাংশ দাবি করেন যে, পুনম নজরকাড়ার জন্য এ সব করেছেন। এটি তিনি অন্যায় করেছেন।

এদিকে নেটিজেনদের একদল এ ঘটনার জন্য দায়ী করেছেন পুনমের ‘পাবলিক রিলেশন’ (পিআর) টিমকে। শেষ পর্যন্ত এ ঘটনার দায়ভার নিল একটি প্রতিষ্ঠান। শুধু তাই নয়, সোশ্যাল মিডিয়ায় এজন্য প্রতিষ্ঠানটির পক্ষ থেকে ক্ষমাও প্রার্থনা করা হয়ছে।

Poonam Pandey hints at secret project with sexy photos!

‘স্কব্যাং’ নামে এক প্রতিষ্ঠান ইনস্টাগ্রামে পোস্ট করে জানান, “জরায়ু মুখের ক্যানসার নিয়ে পুনমের মৃত্যুর ভুয়া খবর ছড়ানোর সঙ্গে জড়িয়ে রয়েছে তারা। এমনকি ‘হটারফ্লাই’ নামে অন্য একটি সংস্থার সঙ্গেও হাত মিলিয়েছিল তারা। নিজেদের কৃতকর্মের জন্য ক্ষমা প্রার্থনাও করা হয় প্রতিষ্ঠানটির পক্ষ থেকে। পোস্টে লিখে তারা জানায়, ‘ক্যানসারের কারণে যারা তাদের প্রিয়জনকে হারিয়েছেন, এই ঘটনা যাদের আঘাত দিয়েছে, তাদের সকলের কাছে আমরা ক্ষমা চাইছি। আমাদের একমাত্র উদ্দেশ্য ছিল জরায়ু মুখের ক্যানসার নিয়ে সকলকে সচেতন করা।

জরায়ু মুখের ক্যানসার ঠিক কোন গতিতে ভারতীয় নারীরে মধ্যে ছড়িয়ে পড়ছে সেই ব্যাখ্যাও দেয় প্রতিষ্ঠানটি। পোস্টে তারা লেখে, ‘২০২২ সালে ভারতে মোট ১,২৩,৯০৭ জন নারী জরায়ু মুখের ক্যানসারে আক্রান্ত হন। তাদের মধ্যে মারা যান ৭৭,৩৪৮ জন। স্তন ক্যানসারের পর ভারতে মধ্যবয়সী নারীরা সবচেয়ে বেশি আক্রান্ত হন জরায়ু মুখের ক্যানসারে।’’

পুনমের মা ক্যানসারে আক্রান্ত হয়ে মারা গিয়েছিলেন বলে জানায় প্রতিষ্ঠানটি। তাদের দাবি, ক্যানসার নিরাময় এবং প্রতিরোধ নিয়ে পুনম ভীষণ সচেতন। ভ্যাকসিনের মাধ্যমে যে জরায়ু মুখের ক্যানসার নিরাময় সম্ভব, তাও জানায় প্রতিষ্ঠানটি।

পোস্টে তাদের মন্তব্য, ‘‘কয়েক দিন আগেও যখন কেন্দ্রীয় অর্থমন্ত্রী বাজেট পেশ করার সময় জরায়ু মুখের ক্যানসারের প্রসঙ্গ তুলেছিলেন তখন তা নিয়ে এত হইচই হয়নি। পুনমের মৃত্যুর খবর ছড়ানোর পর থেকেই এই রোগ নিয়ে হঠাৎ আলোচনা বেড়ে যায়।’’

Poonam Pandey in Orange Bold Top Teases Paparazzi With Her Long Tongue, See  Pics

ইন্টরনেটেও এ মুহূর্তে সবচেয়ে বেশি ‘সার্চ’ করা হয়েছে জরায়ু মুখের ক্যানসার নিয়ে। এমনটাই দাবি করেছে প্রতিষ্ঠানটি। একটি রেখচিত্রের ছবি দিয়ে সেই ব্যবধানও দেখিয়েছে তারা।

পুনম তার অ্যাকাউন্ট থেকে একটি ভিডিও পোস্ট করে তার নিচে লিখে জানান, চার মাস আগে থেকেই তিনি এ ঘটনার জন্য প্রস্তুতি নিচ্ছিলেন। তার সহকারীরা এর জন্য দায়ী নয়, তাও জানান পুনম পান্ডে।

জাগোনিউজ