ঢাকাবুধবার , ২১ ফেব্রুয়ারি ২০২৪
  • অন্যান্য

তিন দেশের ১৯৩ ব্যক্তি-প্রতিষ্ঠানের বিরুদ্ধে ইইউর নিষেধাজ্ঞা

ফেব্রুয়ারি ২১, ২০২৪ ৯:৪৫ অপরাহ্ণ । ৪১ জন

ইউক্রেন পরিস্থিতির জন্য প্রেসিডেন্ট ভ্লাদিমির পুতিনের নেতৃত্বাধীন প্রশাসনকে দায়ী করে রাশিয়া, বেলারুশ এবং উত্তর কোরিয়ার ১৯৩ প্রতিষ্ঠান ও ব্যক্তির ওপর নতুন নিষেধাজ্ঞার একটি প্যাকেজের অনুমোদন দিয়েছে ইউরোপের দেশগুলোর জোট ইউরোপীয় ইউনিয়ন। বেলজিয়ামের রাজধানী ব্রাসেলসের ইইউ’র কেন্দ্রীয় কার্যালয় থেকে জানানো হয়েছে এ তথ্য।

বুধবার সামাজিক যোগাযোগমাধ্যম এক্সে এক পোস্টে ইইউ’র কেন্দ্রীয় কার্যালয়ের পক্ষ থেকে বলা হয়, ‘ইউক্রেনে রুশ বাহিনীর আগ্রাসনের জেরে শাস্তিমূলক ব্যবস্থা হিসেবে ইইউ’র রাষ্ট্রদূতরা নিষেধাজ্ঞার ১৩তম প্যাকেজের নীতিগুলো অনুমোদন করেছেন।’

যেসব প্রতিষ্ঠান-ব্যক্তির ওপর নিষেধাজ্ঞা জারি করা হয়েছে, সেসব প্রতিষ্ঠানের কর্মকর্তা ও ব্যক্তিরা ইউরোপীয় ইউনিয়নভুক্ত দেশগুলোতে ভ্রমণ এবং ব্যবসা বা অন্য কোনো কাজ করতে পারবেন না।

নতুন নিষেধজ্ঞার খাঁড়ায় পড়া প্রতিষ্ঠান-ব্যক্তির মধ্যে কোনটির সংখ্যা কত— তা জানা যায়নি। তবে ইইউর একটি সূত্র জানিয়েছে, নিষেধাজ্ঞাপ্রাপ্ত ব্যক্তি ও প্রতিষ্ঠানের সবই রাশিয়ার সামরিক শিল্পখাতের সঙ্গে কোনো না কোনোভাবে সংশ্লিষ্ট।

সূত্রটি আরও জানিয়েছে, অভিযানরত রুশ বাহিনীর বিরুদ্ধে ইউক্রেন থেকে ৪ হাজারেরও বেশি শিশুকে রাশিয়ায় পাচারের অভিযোগ রয়েছে। ইইউ’র মতে, এটি পরিষ্কারভাবে যুদ্ধাপরাধের অন্তর্ভুক্ত এবং নতুন এই নিষেধাজ্ঞা প্যাকেজের মূল কারণও এই অভিযোগ।

ইউক্রেনের শিশুদের পাচারের অভিযোগে এর আগে গত বছর মার্চে নেদাল্যান্ডসের হেগ শহরে অবস্থিত আন্তর্জাতিক অপরাধ আদালত (আইসিসি) পুতিনের বিরুদ্ধে গ্রেপ্তারি পরোয়ানা জারি করেছিল। মস্কো অবশ্য বরাবর এই অভিযোগ দৃঢ়ভাবে অস্বীকার করে আসছে।

সূত্র : রয়টার্স