ঢাকাশনিবার , ২ মার্চ ২০২৪
  • অন্যান্য

বেইলি রোডে অগ্নিকাণ্ড: গ্রেফতারদের ৭ দিনের রিমান্ড চেয়েছে পুলিশ

মার্চ ২, ২০২৪ ৮:০৩ অপরাহ্ণ । ১১২ জন

রাজধানীর বেইলি রোডে গ্রিন কোজি কটেজে আগুনে ৪৬ জনের প্রাণহানির ঘটনায় দায়ের করা মামলায় গ্রেফতার চারজনের সাতদিনের রিমান্ড চেয়েছে পুলিশ।

আসামিরা হলেন- ভবনের চুমুক রেস্টুরেন্টের দুই মালিক আনোয়ারুল হক, শফিকুর রহমান রিমন, কাচ্চি ভাই রেস্টুরেন্টের ম্যানেজার জয়নুদ্দিন জিসান, ভবনের ম্যানেজার মুন্সি হামিমুল আলম বিপুল।

শনিবার সন্ধ্যায় তাদের আদালতে হাজির করে রমনা থানার পরিদর্শক আবু আনসারি সাত দিনের রিমান্ড আবেদন করেন। ঢাকা মেট্রোপলিটন ম্যাজিস্ট্রেট মোহাম্মদ নুরুল হুদা চৌধুরীর আদালতে এ বিষয়ে শুনানি অনুষ্ঠিত হবে। এর আগে তাদের সন্ধ্যা ৬টায় আদালতের গারদখানায় আনা হয়।

এর আগে শুক্রবার রাতে হত্যাচেষ্টা ও অহবেলাজনিত মৃত্যুর অভিযোগে রমনা থানার উপ-পরিদর্শক শহিদুল ইসলাম বাদী হয়ে এই মামলা করেন।

শুক্রবার ভবনটির নিচতলার চুমুক রেস্টুরেন্টের (ছোট রেস্টুরেন্ট) দুজন মালিক আনোয়ারুল হক, শাকিল আহমেদ রিমন, কাচ্চি ভাই রেস্টুরেন্টের ম্যানেজার জয়নুদ্দিন জিসানকে গ্রেফতার করে ঢাকা মহানগর (ডিএমপি) পুলিশ। পরে শনিবার ভবনের ম্যানেজার হামিমুল হক বিপুলকে গ্রেফতার করেছে রমনা থানা পুলিশ।

গত বৃহস্পতিবার রাত পৌনে ১০টার দিকে বেইলি রোডের গ্রিন কোজি কটেজ নামের ভবনটিতে লাগা আগুনে ৪৬ জনের মৃত্যু হয়েছে। এর মধ্যে ৪৩ জনের পরিচয় শনাক্ত হয়েছে। ওই রাতেই আহতদের ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতাল ও শেখ হাসিনা জাতীয় বার্ন ও প্লাস্টিক সার্জারি ইনস্টিটিউটে ভর্তি করা হয়। এখন ঢাকা মেডিকেলে আর কেউ ভর্তি নেই। আহত ১১ জনের সবার চিকিৎসা চলছে শেখ হাসিনা জাতীয় বার্ন ও প্লাস্টিক সার্জারি ইনস্টিটিউটে।

যুগান্তর