ঢাকামঙ্গলবার , ২১ মে ২০২৪
  • অন্যান্য

ঘর পাচ্ছেন ২০ হাজার ভূমিহীন

মে ২১, ২০২৪ ৮:৫৯ অপরাহ্ণ । ৩৮ জন

নতুন করে আরও ২০ হাজার ভূমি ও গৃহহীনকে ঘর বরাদ্দ দেওয়া হবে। জুনে এটি হস্তান্তর হতে পারে। বরাদ্দ অনুষ্ঠান আয়োজনে ব্যয়ের নীতিগত অনুমোদন দিয়েছে অর্থনৈতিক ক্রয় সংক্রান্ত মন্ত্রিসভা কমিটি।

পৃথকভাবে অনুষ্ঠিত ক্রয় সংক্রান্ত মন্ত্রিসভা কমিটির বৈঠকে ১ কোটি ১০ লাখ লিটার সয়াবিন কেনা, ৩০ হাজার টন সার আমদানিসহ ১০ প্রস্তাব অনুমোদন দেওয়া হয়েছে। এতে ব্যয় ধরা হয়েছে ১ হাজার ৮৫৪ কোটি টাকা।

উভয় কমিটির বৈঠকে সভাপতিত্ব করেন অর্থমন্ত্রী আবুল হাসান মাহমুদ আলী। বৈঠক শেষে এসব বিষয় সাংবাদিকদের কাছে তুলে ধরেন মন্ত্রিপরিষদ বিভাগের সমন্বয় ও সংস্কার সচিব মাহমুদুল হোসাইন খান।

প্রকল্প আশ্রয়ণ-২-এর আওতায় নতুন বরাদ্দের জন্য ঘরগুলো ইতোমধ্যে নির্মাণ হয়ে গেছে। এর আগে প্রায় ২৪ হাজার ৫২০ গৃহহীন ও ভূমিহীনকে ঘর বরাদ্দ দেওয়া হয়েছে।

এদিকে ক্রয় সংক্রান্ত মন্ত্রিসভা কমিটির বৈঠকে টিসিবির জন্য ১ কোটি ১০ লাখ লিটার সয়াবিন তেল কিনতে ব্যয় ধরা হয়েছে ১৮২ কোটি টাকা। লিটারপ্রতি মূল্য পড়বে ১৫২ টাকা ৪৫ পয়সা। সুপার অয়েল রিফাইনারি লিমিটেড থেকে কেনা হবে। এ ছাড়া সংযুক্ত আরব আমিরাত থেকে ৩০ হাজার মেট্রিক টন বাল্ক ইউরিয়া সার কিনতে ক্রয়মূল্য প্রায় ৯৬ কোটি টাকা। প্রতি টনের মূল্য ২৭১.৫০ মার্কিন ডলার।

বৈঠকে সরকার ৫৭.৫০ কিলোমিটার ১১ কেভি কেবল কেনার প্রস্তাব অনুমোদন দেওয়া হয়। চীনের জংটিয়ান টেকনোলজি সাবমেরিন কেবলস কোম্পানি তা সরবরাহ করবে। এতে ব্যয় হবে প্রায় ৪৪ কোটি টাকা। অপর প্রস্তাবে ৮৩ কিলোমিটার ৩৩ কেভি আন্ডারগ্রাউন্ড কেবল অনুমোদন দেওয়া হয়। বিআরবি কেবল ইন্ডাস্ট্রিজ লিমিটেড এটি সরবরাহ করবে। ব্যয় হবে ৬৮ কোটি টাকা।

এছাড়া ঢাকা-ময়মনসিংহ বিভাগের জন্য ১ লাখ ২৬ হাজার ৩৫৬ এসপিসি পোল কেনার প্রস্তাব অনুমোদন দিয়েছে কমিটি। এতে ব্যয় হবে ৪২৬ কোটি টাকা। এর মধ্যে ৬৩ হাজার ১৭৮টি এসপিসি পোল যৌথভাবে কনফিডেন্স ইনফ্রাস্ট্রাকচার ও কনটেক কনস্ট্রাকশন, দাদা ইঞ্জিনিয়ারিং লিমিটেড, পোলস অ্যান্ড কনক্রিট লিমিটেড পোলগুলো সরবরাহ করবে। বাকি পোল সরবরাহ করবে বাংলাদেশ মেশিন টুলস ফ্যাক্টরি লিমিটেড।

বৈঠকে খুলনা প্রকৌশল ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের অবকাঠামো নির্মাণ ক্রয় প্রস্তাব অনুমোদন পায়। এতে মোট ব্যয় হবে ১১৪ কোটি টাকা। এ প্রকল্পের আওতায় ১২০০ আসনের ১০তলা ছাত্রী হল ভবন নির্মাণ করা হবে।

বৈঠক সূত্র আরও জানায়, রায়েরবাজার লোহার ব্রিজ সড়ক উন্নয়ন- ইনার সার্কুলার রিংরোডের বেড়িবাঁধ রায়েরবাজার স্লুইস গেট থেকে লোহার ব্রিজ পর্যন্ত রাস্তার উন্নয়নসহ স্থানীয় সরকার বিভাগের ২টি ক্রয় প্রস্তাবে অনুমোদন দেওয়া হয়। এতে মোট ব্যয় হবে ৯৯৬ কোটি টাকা। ন্যাশনাল ডেভেলপমেন্ট ইঞ্জিনিয়ার্স লিমিটেড প্রকল্পটি বাস্তবায়ন করবে। এতে ব্যয় হবে ৮০৪ কোটি ৭৫ লাখ টাকা। প্যাকেজের আওতায় ইনার সার্কুলার রিং রোডের বেড়িবাঁধ রায়েরবাজার স্লুইস গেট থেকে লোহার ব্রিজ পর্যন্ত রাস্তার উন্নয়ন কাজের ৫ কিলোমিটার (৮ লেনবিশিষ্ট) রাস্তা, ৩টি ওভার পাস, ৩ ফুট ওভার ব্রিজ, স্লুইস গেটসহ ১০ কিলোমিটার বিভিন্ন ব্যাসের পাইপ কালভার্ট, যাত্রীছাউনিসহ ৬টি বাস-বে এবং রিটেইনিং ওয়াল নির্মাণ করা হবে।

যুগান্তর

Paris