ঢাকারবিবার , ৩০ জুন ২০২৪
  • অন্যান্য

রাজশাহীতে মুখোমুখি সংঘর্ষে প্রাণ গেল দুই বাসচালকের, আহত ১০

জুন ৩০, ২০২৪ ৮:৪৫ অপরাহ্ণ । ৮১ জন

রাজশাহীতে যাত্রীবাহী দুই বাসের মুখোমুখি সংঘর্ষে দুজন নিহত হয়েছেন। তারা দুজনই ওই দুই বাসের চালক ছিলেন।

এ ঘটনায় আরও কমপক্ষে ১০ জন আহত হয়েছেন।

শনিবার (২৯ জুন) রাত সাড়ে ১১টার দিকে গোদাগাড়ী উপজেলার কামারপাড়া-অভয়া এলাকায় থাকা রাজশাহী-চাঁপাইনবাবগঞ্জ মহাসড়কে এ দুর্ঘটনা ঘটে।

দুর্ঘটনায় নিহতরা হলেন- রতন সূত্রধর (৫১) ও আসাদুল হক (৩২)। এর মধ্যে আসাদুলের গ্রামের বাড়ি চাঁপাইনবাবগঞ্জ জেলার ভোলাহাটে।

আর রতনের গ্রামের বাড়ি সিরাজগঞ্জ জেলার বেলকুচিতে।

রাজশাহীর গোদাগাড়ী থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) আব্দুল মতিন জানান, শনিবার রাতে দুটি নৈশকোচের মুখোমুখি সংঘর্ষে এই হতাহতের ঘটনা ঘটে।

পাশের জেলা চাঁপাইনবাবগঞ্জ থেকে রাজশাহীর উদ্দেশে আসছিল মদিনা ট্রাভেলস নামের একটি যাত্রীবাহী বাস। আর রাজধানী ঢাকা থেকে চাঁপাইনবাবগঞ্জের উদ্দেশে যাচ্ছিল হানিফ পরিবহনের একটি বাস। উপজেলার কামারপাড়া অভয়া এলাকায় পৌঁছার পর মদিনা ট্রাভেলসের বাসটি দ্রুত গতিতে একটি ট্রাককে ওভারটেক করার সময় বিপরীত দিক থেকে আসা হানিফ পরিবহনের বাসের সঙ্গে মুখোমুখি সংঘর্ষ হয়। এতে দুটি যাত্রীবাহী বাসের সামনের অংশ দুমড়ে মুচড়ে যায় এবং মদিনা ট্রাভেলসের চালক আসাদুল হক ও হানিফ পরিবহনের চালক রতন সূত্রধর ঘটনাস্থলেই মারা যান।

ওসি আরও জানান, দুটি যাত্রীবাহী বাসের মুখোমুখি এই সংঘর্ষের ঘটনায় আরও কমপক্ষে ১০ জন আহত হয়েছেন। তাদের কাউকে গোদাগাড়ী ৩১ শয্যা হাসপাতাল এবং কাউকে রাজশাহী মেডিকেল কলেজ (রামেক) হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। দুর্ঘটনার খবর পেয়ে উপজেলা ফায়ার সার্ভিস ও সিভিল ডিফেন্স কর্মীরা তাদের উদ্ধার করে হাসপাতালে নেয়। এরপর তাদের সহায়তায় পুলিশ উদ্ধার কাজ শুরু করে। এ সময় ঘটনাস্থলের দুপাশের সড়কের প্রায় ১০ কিলোমিটার এলাকায় যানজটের সৃষ্টি হয়। শেষ রাতে দুর্ঘটনাকবলিত বাস দুটি রাজশাহী-চাঁপাইনবাবগঞ্জ মহাসড়ক থেকে সরানোর পর যানবাহন চলাচল স্বাভাবিক হয়।

তিনি জানান, নিহত দুজনের মরদেহ ময়নাতদন্তের জন্য রাজশাহী মেডিকেল কলেজের মর্গে পাঠানো হয়েছে। ময়নাতদন্ত শেষে আজ দুপুরের মধ্যেই তাদের মরদেহ পরিবারের কাছ হস্তান্তর করা হবে।

এই ঘটনায় থানায় মামলার প্রস্তুতি চলছে বলেও জানান গোদাগাড়ী থানার এই পুলিশ কর্মকর্তা।

বাংলা নিউজ