ঢাকামঙ্গলবার , ৯ জুলাই ২০২৪
  • অন্যান্য

গাজার কোথাও নিরাপদ স্থান নেই: বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থার প্রধান

জুলাই ৯, ২০২৪ ৭:০২ অপরাহ্ণ । ৩০ জন

ইসরাইলের বিমান হামলার মুখে ফিলিস্তিনের গাজা উপত্যকার কোথাও আর নিরাপদ নয় বলে জানিয়েছেন বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থার (ডাব্লুএইচও) প্রধান টেড্রোস আধানম ঘেব্রেইসাস। তিনি বলেছেন, এমনকি তাদের আশ্রয়কেন্দ্র ও হাসপাতলগুলোও নিরাপত্তাঝুঁকিতে রয়েছে।

সোমবার সামাজিকমাধ্যম এক্স-এর একটি পোস্টে তিনি এসব কথা জানিয়েছেন। খবর জিও টিভির।

বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থার প্রধান বলেন, ইসরাইলের অবরোধের কারণে উপত্যকাটিতে খাওয়ার পানি, জ্বালানি ও চিকিৎসা সরঞ্জামের তীব্র সংকট দেখা দিয়েছে।

টেড্রোস আধানম ঘেব্রেইসাস বলেন, গাজার আল আহলি আরব হাসপাতাল এবং রোগীর বন্ধু নামে পরিচিত বেনেভোলেন্ট সোসাইটি হাসপাতালেও ইসরাইলের বাধার কারণে রোগীদের সেবা দিতে পারছে না।

তিনি বলেন, রোগীদের হাসপাতাল থেকে তাড়িয়ে দেওয়া হয়েছে। বাধ্য হয়ে কামাল আদওয়ান এবং ইন্দোনেশিয়ান হাসপাতালে জরুরি রোগীদের রেফার করা হয়েছে।

তিনি বলেন, এলাকার স্বাস্থ্য সেবা কার্যকরী থাকলেও গাজাবাসীকে ইসরাইলি বাহিনী অসুস্থ রোগীদের হাসপাতালে সেবা নিতে বাধা দিচ্ছে।

গাজার স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয় বলছে, ৭ অক্টোবর দক্ষিণ ইসরাইলে হামাসের হামলার প্রতিক্রিয়ায় শুরু করা পাল্টা হামলায় এখন পর্যন্ত ৩৮ হাজারেরও বেশি ফিলিস্তিনি নিহত হয়েছেন। এছাড়াও আহত হয়েছেন আরও ৮৭ হাজারের বেশি মানুষ। হতাহতদের মধ্যে অধিকাংশ নারী ও শিশু রয়েছেন।

ইসরাইলি কর্তৃপক্ষের মতে, হামাসের ওইদিনের হামলায় এক হাজার ২০০ ফিলিস্তিনি নিহত হন। এসময় আরও প্রায় ২৫০ জনকে জিম্মি করে গাজায় নিয়ে যায় সশস্ত্র যোদ্ধারা।

যুগান্তর

Paris