ঢাকাসোমবার , ১০ জানুয়ারি ২০২২

বিশ্বকাপ চার দিন পর কিন্তু এখনো ভিসা পায়নি আফগানিস্তান

জানুয়ারি ১০, ২০২২ ৬:১৮ অপরাহ্ণ । ১৫৫ জন

গত অক্টোবরে টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপে যাওয়ার আগেও এমন ঝামেলায় পড়েছিল আফগানিস্তান জাতীয় ক্রিকেট দল। শেষ পর্যন্ত সে জটিলতা ঘুচিয়ে টুর্নামেন্টে খেলতে পেরেছেন রশিদ খান, মোহাম্মদ নবীরা। এর আগে তালেবান আফগানিস্তানের ক্ষমতায় আসার জেরে অস্ট্রেলিয়া নিজেদের মাটিতে আফগানিস্তানের সঙ্গে টেস্ট খেলেনি।

এবার আফগানিস্তানের অনূর্ধ্ব-১৯ ক্রিকেট দলকেও একই রকম জটিলতায় পড়তে হচ্ছে। ওয়েস্ট ইন্ডিজের মাটিতে ১৪ জানুয়ারি শুরু হচ্ছে অনূর্ধ্ব-১৯ বিশ্বকাপ। কিন্তু টুর্নামেন্টের চার দিন আগেও এখনো ভিসা জটিলতা কাটেনি আফগানিস্তান দলের। ক্রিকেটের বৈশ্বিক নিয়ন্ত্রক সংস্থা আইসিসি জানিয়েছে, জটিলতার অবসানে আলোচনা চলছে।

কিন্তু এখনো আফগানিস্তান দল ক্যারিবিয়ানে এসে পৌঁছাতেই পারেনি বলে ম্যাচ দুটি বাতিল করা হয়েছে। নতুন করে ইংল্যান্ড আর সংযুক্ত আরব আমিরাতের মধ্যে প্রস্তুতি ম্যাচের দিন ঠিক হয়েছে কাল ১১ জানুয়ারি, ভেন্যু-সেন্ট কিটস অ্যান্ড নেভিসের কোনারি ক্রিকেট সেন্টার।

তালেবান ক্ষমতায় থাকার কারণে নাকি করোনা–বিষয়ক জটিলতা, নাকি অন্য কোনো কারণ—ঠিক কী কারণে আফগানিস্তান ভিসা পাচ্ছে না, সেটি এখনো জানা যায়নি। তবে প্রস্তুতি ম্যাচ বাতিলের ঘোষণা দেওয়া আনুষ্ঠানিক বিবৃতিতে আইসিসি জানিয়েছে, সংকট নিরসনে আলোচনা চলছে।

কিন্তু এখনো আফগানিস্তান দল ক্যারিবিয়ানে এসে পৌঁছাতেই পারেনি বলে ম্যাচ দুটি বাতিল করা হয়েছে। নতুন করে ইংল্যান্ড আর সংযুক্ত আরব আমিরাতের মধ্যে প্রস্তুতি ম্যাচের দিন ঠিক হয়েছে কাল ১১ জানুয়ারি, ভেন্যু-সেন্ট কিটস অ্যান্ড নেভিসের কোনারি ক্রিকেট সেন্টার।

তালেবান ক্ষমতায় থাকার কারণে নাকি করোনা–বিষয়ক জটিলতা, নাকি অন্য কোনো কারণ—ঠিক কী কারণে আফগানিস্তান ভিসা পাচ্ছে না, সেটি এখনো জানা যায়নি। তবে প্রস্তুতি ম্যাচ বাতিলের ঘোষণা দেওয়া আনুষ্ঠানিক বিবৃতিতে আইসিসি জানিয়েছে, সংকট নিরসনে আলোচনা চলছে।

এর আগে ছয়বার আইসিসির অনূর্ধ্ব-১৯ বিশ্বকাপে খেলেছে আফগানিস্তান দল। সবচেয়ে ভালো করেছে ২০১৮ সালে নিউজিল্যান্ডে অনুষ্ঠিত আসরে, উঠেছিল সেমিফাইনালে। অস্ট্রেলিয়ার কাছে হেরে সেবার শেষ চার থেকে বাড়ি ফেরে তারা।
১৪ জানুয়ারি শুরু হওয়া এবারের অনূর্ধ্ব-১৯ বিশ্বকাপে আফগানিস্তান আছে গ্রুপ ‘সি’-তে, যেখানে তাদের সঙ্গী পাকিস্তান, জিম্বাবুয়ে ও পাপুয়া নিউগিনি।

এবারের অনূর্ধ্ব-১৯ বিশ্বকাপে ১৬টি দল ২২ দিন ধরে ৪৮ ম্যাচে লড়বে। ফাইনাল আগামী ৫ ফেব্রুয়ারি। টুর্নামেন্টের বর্তমান চ্যাম্পিয়ন বাংলাদেশ। ২০২০ সালের অনূর্ধ্ব-১৯ বিশ্বকাপে ফাইনালে ভারতকে হারিয়ে শিরোপা জেতে আকবর আলীর দল।
শিরোপা ধরে রাখার লক্ষ্য নিয়ে এরই মধ্যে ওয়েস্ট ইন্ডিজে পৌঁছেছে বাংলাদেশ দল। গ্রুপ ‘এ’-তে বাংলাদেশের সঙ্গী কানাডা, ইংল্যান্ড ও সংযুক্ত আরব আমিরাত।

শেষ পর্যন্ত ভিসা জটিলতায় আফগানিস্তান খেলতে না পারলে তারা হবে টুর্নামেন্টে সুযোগ পেয়েও খেলতে না পারা দ্বিতীয় দল। এর আগে করোনার কোয়ারেন্টিন–সংক্রান্ত জটিলতার কারণে নিউজিল্যান্ড দল টুর্নামেন্ট থেকে নাম সরিয়ে নিয়েছে। তাদের যুক্তি, নিউজিল্যান্ডের করোনাবিধি অনুযায়ী টুর্নামেন্ট খেলে দেশে ফেরার পর ক্রিকেটারদের একটা নির্দিষ্ট সময় কোয়ারেন্টিন করতে হবে, কিন্তু এই অল্প বয়সী ক্রিকেটারদের এত লম্বা সময় পরিবারের বাইরে এভাবে কোয়ারেন্টিনে রাখতে তারা রাজি নয়।

নিউজিল্যান্ড সরে যাওয়া বিশ্বকাপে সুযোগ পায় স্কটল্যান্ড। গ্রুপ ডি-তে অস্ট্রেলিয়া, শ্রীলঙ্কা ও স্বাগতিক ওয়েস্ট ইন্ডিজের সঙ্গে এখন খেলবে স্কটল্যান্ডই।
গ্রুপ ‘বি’-তে পড়েছে ভারত, আয়ারল্যান্ড, দক্ষিণ আফ্রিকা ও উগান্ডা।