ঢাকাশনিবার , ২৯ অক্টোবর ২০২২
  • অন্যান্য

শ্রীলঙ্কাকে হারিয়ে এগিয়ে গেল নিউ জিল্যান্ড

অক্টোবর ২৯, ২০২২ ৬:৪৮ অপরাহ্ণ । ৯৯ জন

বিশ্বকাপের সুপার টুয়েলভের ‘গ্রুপ-১’ এর ম্যাচে শনিবার শ্রীলঙ্কাকে ৬৫ রানে হারিয়েছে নিউ জিল্যান্ড। সিডনি ক্রিকেট গ্রাউন্ডে এদিন টস জিতে কিউইরা আগে ব্যাট করে গ্লেন ফিলিপসের সেঞ্চুরিতে ভর করে ৭ উইকেটে ১৬৭ রান সংগ্রহ করে। জবাবে ১৯.২ ওভারে ১০২ রানেই অলআউট হয়ে যায় লঙ্কানরা।

এই জয়ে ৩ ম্যাচ থেকে ৫ পয়েন্ট সংগ্রহ করে পয়েন্ট টেবিলের শীর্ষেই রইলো ব্ল্যাক ক্যাপসরা। পাশাপাশি সেমিফাইনালে যাওয়ার দৌড়ে কিছুটা এগিয়ে থাকলো তারা।

রান তাড়া করতে নেমে শুরুতেই ব্যাটিং বিপর্যয়ে পড়ে শ্রীলঙ্কা। শূন্যরানে প্রথম, ৪ রানে দ্বিতীয়, ৫ রানে তৃতীয়, ৮ রানে চতুর্থ উইকেট হারায় তারা। এরপরও চলে আসা-যাওয়ার মিছিল। তাতে ১০০ রানেই নিচেই অলআউট হওয়ার শঙ্কা জাগে। তবে ভানুকা রাজাপাকসে ও দাসুন শানাকার ব্যাটে ভর করে ১০২ রান পর্যন্ত যেতে পারে ক্রিস সিলভারউডের শিষ্যরা। রাজাপাকসে ২২ বলে ৩ চার ও ২ ছক্কায় ৩৪ ও শানাকা ২১ বলে ৪টি চার ও ১ ছক্কায় ৩৫ রান করেন। বাকিদের কেউ দুই অঙ্কের কোটা ছুঁতে পারেননি।

বল হাতে নিউ জিল্যান্ডের ট্রেন্ট বোল্ট ৪ ওভারে মাত্র ১৩ রান দিয়ে ৪টি উইকেট নেন। ২টি করে উইকেট নেন মিচেল স্যান্টনার ও ইশ সোধি। ম্যাচসেরা হন সেঞ্চুরিয়ান গ্লেন ফিলিপস।

তার আগে টস জিতে ব্যাট করতে নেমে নিউ জিল্যান্ডের শুরুটা হয়েছিল একেবারেই নড়বড়ে। আগের ম্যাচে অস্ট্রেলিয়ার বিপক্ষে ঝড় তুলেছিলেন ফিন অ্যালেন ও ডেভন কনওয়ে। কিন্তু আজ তারা পুরোপুরি ব্যর্থ হন। দলীয় ১ রানের মাথায় অ্যালেন (১) ও ২ রানের মাথায় কনওয়ে (১) ফেরেন সাজঘরে। অধিনায়ক কেন উইলিয়ামসনও টিকতে পারেননি। ১৫ রানের মাথায় তিনিও আউট হন ব্যক্তিগত ৮ রানে।

সেখান থেকে দলের হাল ধরেন ফিলিপস ও ড্যারিল মিচেল। চতুর্থ উইকেটে তারা দুজন ৮৪ রান তোলেন। ১৫তম ওভারে ড্যারিল ২২ রান করে আউট হলে ভাঙে এই জুটি। ১২৯ রানের মাথায় জিমি নিশাম ফেরেন ৫ রান করে।

তবে ফিলিপস থাকেন অবিচল। তুলে নেন টি-টোয়েন্টি ক্যারিয়ারের দ্বিতীয় সেঞ্চুরি। তিনি মাত্র ৬১ বলে ১০টি চার ও ৪ ছক্কায় সেঞ্চুরি পূর্ণ করেন। দলীয় ১৬২ রানের মাথায় ৬৪ বলে ১০৪ রান করে আউট হন তিনি। ১৬৩ রানে ফেরেন ইশ সোধি। তবে শেষ দিকে মিচেল স্যান্টনারের অপরাজিত ১১ ও টিম সাউদির অপরাজিত ৪ রানে নিউ জিল্যান্ডের সংগ্রহ ১৬৭ পর্যন্ত যায়।

বল হাতে শ্রীলঙ্কার কাসুন রাজিথা ৪ ওভারে ২৩ রান দিয়ে ২টি উইকেট নেন।