ঢাকারবিবার , ৯ এপ্রিল ২০২৩
  • অন্যান্য

বঙ্গবাজারের ব্যবসায়ীদের ২০ লাখ টাকা দিলেন হিজড়ারা

এপ্রিল ৯, ২০২৩ ৪:৩৪ অপরাহ্ণ । ১১৬ জন

রাজধানীর বঙ্গবাজারে ক্ষতিগ্রস্ত ব্যবসায়ীদের জন্য ২০ লাখ টাকা সহায়তা দিলেন হিজড়ারা। সারাদেশে তৃতীয় লিঙ্গের জনগোষ্ঠী কেউ ঈদুল ফিতরের কেনাকাটা করবেন না, পরিবর্তে সেই টাকা ক্ষতিগ্রস্ত ব্যবসায়ীদের সহায়তার জন্য অনুদান হিসেবে দেওয়া হয়েছে বলে জানিয়েছেন তারা।

রবিবার (৯ এপ্রিল) বেলা ১২টার দিকে বঙ্গবাজার পুড়ে যাওয়া মার্কেটে তৃতীয় লিঙ্গ জনগোষ্ঠীর পক্ষ থেকে ক্ষতিগ্রস্ত ব্যবসায়ীদের সহায়তা প্রদান করা হয়। এবারই প্রথম তৃতীয় লিঙ্গ জনগোষ্ঠীর পক্ষ থেকে সাহায্য সহায়তা করা হচ্ছে।

বাংলাদেশ হিজড়া উন্নয়ন সংস্থার সভাপতি কাশ্মির দিপালী হিজড়া সাংবাদিকদের বলেন, গত ৩০ থেকে ৪০ বছর ধরে আমরা তাদের কাছ থেকে টাকা নিয়ে চলেছি। আজ তাদের এই বিপদের সময় আমরা আমাদের এবারের ঈদের যেসব কেনাকাটা করার কথা, সেগুলো না করে এই ব্যবসায়ী ভাইদের পাশে এসে দাঁড়িয়েছি। সারাদেশ থেকে ২০ লাখ টাকা আমরা তুলেছি। সেই টাকা আজ তাদের দিতে এসেছি। তারা বেঁচে থাকলে আমরাও বেঁচে থাকবো।

হিজড়াদের গুরুমা রাখি শেখ বলেন, আমরা মানুষের কাছ থেকে এক দুই টাকা করে উঠিয়ে উঠিয়ে এই টাকা জমিয়েছি। এখন আমরা সেটা মানবতার কল্যাণেই দিয়ে দেবো। এই টাকা কোনও ব্যবসায়ীর হাতে হাতে দেওয়া হবে না। পুরোটাই ক্ষতিগ্রস্ত ব্যবসায়ীদের সহায়তা তহবিলে জমা দেওয়া হবে। সেখান থেকে ক্ষতিগ্রস্ত ব্যবসায়ীদের হাতে হাতে এই টাকা পৌঁছানো হবে।

এই অনুদান হস্তান্তরকালে ঢাকাসহ আশপাশের হিজরা গুরুমায়েরা আসেন। প্রায় শতাধিক হিজড়া এসময় উপস্থিত ছিলেন। এছাড়া বকুল হিজরা বলেন, তৃতীয় লিঙ্গের জনগোষ্ঠীর পক্ষ থেকে ক্ষতিগ্রস্ত ব্যবসায়ীদের আরও সাহায্য সহযোগিতা করা হবে। আমরা আজ আনুষ্ঠানিকভাবে ২০ লাখ টাকা দিয়েছি। এরপর যে যার মতো করে এখানে অনুদান দেবেন।

এর আগে সকালে রাজধানীর উত্তরা এলাকার হিজড়াদের সরদার আলেয়া হিজড়া হজের জন্য জমানো টাকা থেকে দুই লাখ টাকা বঙ্গবাজারের ব্যবসায়ীদেরকে অনুদান হিসেবে দেন। বঙ্গবাজারের ক্ষতিগ্রস্ত ব্যবসায়ীদের দুর্দশা দেখে এবার হজ না করে সেই দুই লাখ টাকা অনুদান হিসেবে ব্যবসায়ীদের দিয়ে দিয়েছেন বলে জানিয়েছেন তিনি।

বাংলাদেশ দোকান মালিক সমিতির সভাপতি হেলাল উদ্দিন সাংবাদিকদের বলেন, আজ হাতে পাওয়া টাকার মধ্যে সবচেয়ে আনন্দদায়ক হলো তৃতীয় লিঙ্গের মানুষেরা ২০ লাখ টাকা দিয়েছে। এটা আমাদের কাছে মনে হয়েছে মানবতার শ্রেষ্ঠ উদাহরণ। এ কারণে আমরা ব্যবসায়ী ভাইদের অনুরোধ করবো তাদের যেন কখনও অবহেলার চোখে না দেখে।

বাংলাট্রিবিউন

Paris