ঢাকামঙ্গলবার , ২ জানুয়ারি ২০২৪

অ্যাকাউন্টের সুরক্ষায় নতুন ফিচার নিয়ে এলো ইমো

জানুয়ারি ২, ২০২৪ ১০:২২ অপরাহ্ণ । ১৩১ জন

অ্যাসিমেট্রিক ক্রিপ্টোগ্রাফি প্রযুক্তি ব্যবহার করে সম্প্রতি ‘পাসকিজ’ ফিচার উন্মোচন করেছে তাৎক্ষণিক যোগাযোগে জনপ্রিয় প্ল্যাটফর্ম ইমো। এর ফিচারের মাধ্যমে সর্বোচ্চ মানসম্পন্ন ও নিরাপদ সুরক্ষিত ব্যবস্থা নিশ্চিত করা সম্ভব হবে, যা ইমো ব্যবহারকারীদের আরও স্বাচ্ছন্দ্যদায়কভাবে মুখমণ্ডল, আঙুলের ছাপ ও পিন ব্যবহার করে অ্যাকাউন্ট আনলক করার সুযোগ করে দিবে।

পাসকিজ ফিচারের মাধ্যমে ব্যবহারকারীরা পাসওয়ার্ড ছাড়াই অ্যাপে লগ ইন করতে পারবেন। ব্যবহারকারীরা এখন বায়োমেট্রিক সুবিধা, যেমন: ফিঙ্গারপ্রিন্ট, ফেস রিকগনিশন অথবা পিন ব্যবহার করে অ্যাকাউন্ট আনলক করতে পারবেন। সহজ, দ্রুত ও আরও সুরক্ষিত উপায়ে অ্যাপ ব্যবহার করার ক্ষেত্র তৈরির মাধ্যমে নিরবচ্ছিন্ন অথেনটিকেশন প্রক্রিয়ার ক্ষেত্রে নতুন মানদণ্ড স্থাপন করেছে ইমোর পাসকিজ ফিচার। ইমোতে লগ ইন করার সময় এ ফিচার ব্যবহারে ব্যবহারকারীরা তাদের বায়োমেট্রিক তথ্য ব্যবহার করতে পারবেন। এ তথ্য অ্যাপের লগ ইন সার্ভিস জানতে পারবে না; যা নিশ্চিত করবে ব্যবহারকারীর গোপনীয়তা ও লগ ইন প্রক্রিয়াকে করে তুলবে আরও সহজ। অত্যাধুনিক অ্যাসিমেট্রিক ক্রিপ্টোগ্রাফি প্রযুক্তির ফলে অনাকাঙ্ক্ষিত ওয়েবসাইট ও সোশ্যাল ইঞ্জিনিয়ারিং স্ক্যামের ক্ষেত্রে ব্যবহারকারীরা পাসকিজ সংশ্লিষ্ট প্রতারণার থেকে সুরক্ষিত থাকতে পারবেন।

এছাড়াও, এ প্রযুক্তিতে ফিঙ্গারপ্রিন্ট ও ফেসিয়াল রিকগনিশন ব্যবহার করে ব্যবহারকারীর পরিচয় নিশ্চিত করা হয়; তাই, ব্যবহারকারীদের সুরক্ষা সংক্রান্ত উদ্বেগ কমাতেও ভূমিকা রাখবে সম্প্রতি উন্মোচিত হওয়া ইমোর এ ফিচার।

পাসকিজ ফিচার ব্যবহারের মাধ্যমে শুধুমাত্র লগ ইন প্রক্রিয়া ঝামেলাবিহীনই হবে না, পাশাপাশি লগ ইনের ক্ষেত্রে সেকেন্ডারি অথেনটিকেশনের প্রয়োজনীয়তাও দূর হবে। এছাড়াও, এ ফিচার নিরবিচ্ছিন্ন যোগাযোগ প্রক্রিয়ার নতুন মাত্রা যুক্ত করবে – ব্যবহারকারীদের আর পাসওয়ার্ড মুখস্থ রাখতে হবে না এবং দেশের বাইরেও এসএমএস কোড পাওয়ার নিয়ে দুশ্চিন্তা করতে হবে না।

বৈশ্বিকভাবে অনেক প্রতিষ্ঠান এসএমএস-ভিত্তিক ক্লান্তিকর টু-ফ্যাক্টর অথেকটিকেশনের ঝামেলা দূর করতে পাসকিজ প্রযুক্তি ব্যবহার করছে। নতুন এ ফিচার উন্মোচনের মাধ্যমে বৈশ্বিক এ পরিবর্তনে যুক্ত হয়েছে ইমো এবং বৈশ্বিক যোগাযোগে নতুন দিগন্ত উন্মোচনে ভূমিকা রাখছে।

বাংলানিউজ